যৌবন বা তারুণ্য ধরে রাখার গোপন রহস্য জেনে নিন।

By | August 17, 2018

বিজ্ঞানিদের দীর্ঘ গবেষনায় চিরকাল যৌবন বা উচ্ছাস তারুন্য ধরে রাখতে গুরুত্বপূর্ণ কিছু
তথ্য প্রকাশ করেছেন। যা নিয়মিত অনুসর করলে বা অভ্যাসে পরিনত করলে আমরা
আমাদের যৌবন চিরকালই ধরে রখতে পারি। আমরা ধরে রাখতে পারি পরিবার ও সমাজের ভালবাসা। কারন আমাদের যখন যৌবন ফুরিয়ে যায় তখন পরিবার ও সমাজেরও প্রয়োজন ফুরিয়ে যায়। সবার কাছে হয়ে যাই অবহেলার মানুষ। বাকী জীবনটুকু হয় কষ্ঠের ও অযত্নের। আমরা কি এমনটা কামনা করি ? কখনও না। আমরা চাই জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত ভালবাসা ও যৌবন লালসা। ছিড়েঁ-চিবিয়ে খাব,চুষে আর চামচ দিয়ে নয়। সান্তনা আর মিথ্যে ভালবাসা নয়,অধিকারের আসল ও খাঁটি ভালবাসা চাই। আপনারাও কি আমার মত করে চান ? তাহলে আসুন, আমরা যৌবন ধরে রাখতে গবেষনামূলক তথ্য গুলো অনুসরন করি এবং অভ্যাসে পরিনত করি। নিম্নে তথ্যগুলোর আলোচ্যঃ—

১। চিনিমুক্ত খাবার-
প্রসেসিং চিনি অর্থাৎ বর্তমান বাজারের চিনি স্বাস্হ্যকর নয়। এই চিনি শরীলের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমিয়ে দেয়। এতে শরীলের কোষগুলো দূর্বল হয়ে পড়ে। ত্বকের ইলাস্টিসিটি নষ্ট করে দেয়। ফলে মানুষের যৌবন তাড়াতাড়ি ফুরিয়ে যায়। তাই চিনিমুক্ত খাবার খাওয়া উচিত। চিনি বর্জন করুন।

২। মাছের তেল-
যে কোন মাছের তেলে রয়েছে প্রর্যাপ্ত পরিমাণে ওমেগা-৩ খাদ্য উপাদান ফ্যাটি অ্যাসিড। যা আমাদের দৈহিক যৌবন দীর্ঘদিন ধরে রাখতে সক্ষম। বয়সের ছাপ পরতে দেয় না। শরীলের ত্বক রাখে টানটান ও মজবুত। মাছের তেল দেহের প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। হার্টের কার্ডিওভ্যস্কুলার সিস্টেম অক্ষন্ন রাখে, চুল পড়া রোধ করে ও চুলের স্বাস্হ্য ভাল রাখে। সপ্তাহে কমপক্ষে ৩-৪ দিন মাছ খাদ্যতালিকায় রাখুন।

৩। গ্রিন -টী-
যৌবন বা তারুণ্য দীর্থদিন ধরে রাখতে এবং ত্বককে ভাল রাখতে চান তাহলে সাধারন চা-এর পরিবর্তে গ্রিন বা সবুজ চা পান করুন। গ্রিন-টীতে প্রচুর পরিমান খাদ্য উপাদান অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট বিদ্যমান যা পরিপাকতন্ত্রকে সুস্থ রাখতে বিষেশ ভূমিকা রাখে। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে । বয়সের ছাপ পড়তে রোধ করে।

৪। নিয়মিত পরিশ্রম করুন-
নিয়মিত শারীরিক ব্যায়াম ও প্রতিদিন ৩০মিনিট হাঁটার অভ্যাস করুন। সাধারন ব্যায়াম রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় এবং ত্বক টানটান রাখে। শরীলের রক্ত সঞ্চালন বৃদ্ধি করে। সঠিক মাএায় দেহে অক্সিজেন সরবরাহ করে। দেহের বার্ধক্যজনিত সমস্যা রোধ করে।

৫। তিলের তেল-
নিয়মিত প্রতি সকালে তিলের তেল পুরো দেহের ত্বকে ম্যাসেজ করলে ত্বক ভাল থাকে এবং দেহের রক্ত সঞ্চালন বৃদ্ধি করে। কিছুক্ষন পর গোসল করে নিন। এতে গোসল করার সময় মৃত কোষগুলো চলে যায়। ত্বক টানটান ও যৌবন ধরে রাখার জন্য আর একটি কৌশল।

৬। ফলমূল ও শস্যজাত খাবার-
প্রতিদিন নিয়ম করে অল্প পরিমান ফল-সবজি ও শস্যদানা জাতীয় খাবার খাওয়া অভ্যাস
গড়ে তুলুন । যেমনঃ ফলের পাশাপাশি বাদাম, ছোলাবোট, সিমের বীজ, মটর ইত্যাদি। ফল ও শস্যদানা নিয়মিত খেলে দীর্ঘদিন যৌবন ও তারুন্য ধরে রাখা যায়।

৭। মানসিক চাপমুক্ত থাকুন-
মানসিক চাপ ত্বকের জন্য খুবই ক্ষতিকর। যার জন্য যৌবন তাড়াতাড়ি ফুড়িয়ে যায়। মানসিক চাপের কারনে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যায়। শরীলের কোষ দূর্বল হয়ে পড়ে। এতে চামড়া ঢিলে হয়ে যায়। তাতে বয়সের ছাপ পড়ে যায়। চুল পড়ার অন্যতম কারনও মানসিক চাপ দায়ী। তাই নিজেকে সর্বদায় মানসিক চাপমুক্ত রাখুন এবং চিরকাল যৌবন ও তারুন্য ধরে রাখুন।

৮। যৌন কুঅভ্যাস ছাড়ুন-
যৌন কুঅভ্যাস গুলো পরিত্যাগ করুন। এই কুঅভ্যাস গুলো যৌবন বা তারুণ্য ফুরিয়ে যাবার অন্যতম একটি কারন। তাই যৌন কুঅভ্যাস মুক্ত থাকুন, দীর্ঘদিন যৌবন ধরে রাখুন।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *